বাঁধ ভেঙে দ্বিখণ্ডিত সড়ক, স্কুলে যেতে পারছে না শিক্ষার্থীরা

0

 



ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের কর্ণেল বাজার এলাকায় হাওড়া নদীর বাঁধ ভেঙে সড়ক দ্বিখণ্ডিত হওয়ার কারণে অন্তত ৪টি গ্রামের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এ কারণে কর্ণেল বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা আসতে পারছে না।

গতকাল শনিবার (১৮ জুন) ভোরে হাওড়া নদীর বাঁধ ভেঙে আইড়ল, ইটনা, খারকোট ও লক্ষ্মীপুর গ্রামের সড়ক বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এ কারণে এদিন কর্ণেল বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোনো শিক্ষার্থীই আসতে পারেনি।

রোববার (১৯ জুন) বেলা সোয়া ১১টায় কর্ণেল বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, বিজয় নামে চতুর্থ শ্রেণি এবং সাদিয়া আক্তার মিম, নাদিয়া আক্তার জিম ও ফাহমিদা সুলতানা ও সাদিয়া আক্তার নামে পঞ্চম শ্রেণির মোট পাঁচজন শিক্ষার্থীকে শ্রেণিকক্ষে দেখা গেছে। 

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মধ্যে সাদিয়া আক্তারের বাড়ি মোগড়া ইউনিয়নের শান্তিপুর গ্রামে। বাকিরা মনিয়ন্দ ইউনিয়নের আইড়ল গ্রামের। তারা সবাই সড়ক দ্বিখণ্ডিত হওয়ার ফলে আশপাশের কয়েকটি গ্রাম ঘুরে বিদ্যালয়ে এসেছে। আর বিজয়ের বাড়ি একই ইউনিয়নের নোয়াপাড়া গ্রামে।

বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বিদ্যালয়ে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত মোট শিক্ষার্থী ২৭৬ জন। এর মধ্যে মেয়ে শিক্ষার্থী ১৪৭ জন এবং ছেলে শিক্ষার্থী ১২৯ জন। এ বিদ্যালয়ে মোট শিক্ষক আছেন ছয়জন। তাদেরও বিদ্যালয়ে আসতে বেগ পেতে হচ্ছে।বিজয় জানায়, তার গ্রামে পানি উঠেনি।

 কিন্তু তাকে কর্দমাক্ত রাস্তা পেরিয়ে স্কুলে আসতে হয়েছে। তবে স্কুলে এসে অন্য সহপাঠীদের না পেয়ে তার খারাপ লাগছে। তার অনেক সহপাঠী পানিবন্দি বলে জানায় সে।কর্ণেল বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মাহবুবুর রহমান বলেন,

 বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে আইড়ল, ইটনা ও লক্ষ্মীপুর গ্রামের। কিন্তু সড়ক দ্বিখণ্ডিত হওয়ায় ওইসব গ্রামের শিক্ষার্থীরা আসতে পারছে না। আমাদের শিক্ষকদেরও কয়েকটি গ্রাম পেরিয়ে বিদ্যালয়ে আসতে হচ্ছে। সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বাড়বে না।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !
To Top