মূলত এসএসি পাস, চিকিৎসা দিতেন চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন হিসেবে

0

 



সঞ্জয় কুমার নাথ। মূলত এসএসসি পাস। তবে নিজেকে পরিচয় দিতেন চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও সার্জন হিসেবে। এছাড়া নিজেকে এমবিবিএস, এমডি (অফ), এমইপিএফ (আমেরিকা) বলে পরিচয় দিতেন।

 এভাবে প্রতারণার মাধ্যমে ১৬ বছর ধরে চট্টগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় কাজ করে আসছিলেন তিনি। অবশেষে র‌্যাব-৭ তাকে চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন বদ্দারহাট মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামের তার ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠান থেকে তাকে আটক করেছে।শনিবার (১৮ জুন) তাকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামে প্রতিষ্ঠান খুলে চিকিৎসার নামে নিরীহ রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছেন সঞ্জয় কুমার নাথ। 

ওই তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়েছে। আটকের পর সঞ্জয় কুমার নাথ ‘ভুয়া ডাক্তার’ বলে স্বীকার করেছেন। তার চেম্বার তল্লাশি করে বিভিন্ন ধরনের ভুয়া ডাক্তারি সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে।

dhakapost

র‌্যাব কর্মকর্তা মো. নুরুল আবছার বলেন, সঞ্জয় কুমার নাথকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, তিনি দীর্ঘদিন ধরে এমবিবিএস, সার্জিক্যাল ডাক্তার সেজে নিরীহ রোগীদের অস্ত্রোপচারসহ বিভিন্ন জটিল রোগের ভুয়া চিকিৎসা দিয়ে প্রতারণামূলক ভাবে অর্থ আত্মসাত করে আসছিলেন।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, তিনি স্থান পরিবর্তন করে ১৬ বছর ধরে রোগীদের সঙ্গে এমন প্রতারণা করেছেন। তিনি সমাজে পেশাদার ডাক্তার মর্যাদা ক্ষুণ্ন করেছেন।তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !
To Top